জেলে যেতে হয়েছে যেসব বলিউড তারকাদের

0
44
রাজস্থানে কৃষ্ণ হরিন শিকারের অপরাধে সম্প্রতি পাঁচ বছরের কারাদন্ডের সাজা হয়েছে বলিউড তারকা সালমান খানের। রায়ের পর হাজতেও যেতে হয়েছে বলিউডের এই ভাইজানকে। তবে সালমানই প্রথম নন,সময়ে অসময়ে নানান বিতর্কিত কর্মকান্ডের জন্ম দিয়ে কারাগারে যেতে হয়েছে অন্যান্য বলিউড তারকাদেরও। তেমনই কিছু বলিউড তারকাদের জেলে যাবার ঘটনা তুলে ধরা হলোঃ-

 

সঞ্জয় দত্তঃ ১৯৯৩ সালের মুম্বাইয়ের সিরিজ বোমা হামলা ও অবৈধ অস্ত্র রাখার দায়ে দীর্ঘ পাঁচ বছরের জন্যে জেলে যেতে হয়েছিলো বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা সঞ্জয় দত্তকে। বলিউডের রুপালি পর্দায় সঞ্জয় যখন উজ্জ্বল নক্ষত্র তখনই এমন বিতর্কের জন্ম দেন এই তারকা। পরবর্তীতে ২০১২ সালে আদালতের রায় অনুযায়ী ৫ বছরের জন্যে পুনের ইয়েরাধা কারাগারে হাজতবাস করেন সঞ্জয়।

 

জন আব্রাহামঃ মাতাল অবস্থায় মোটর বাইক চালানো এবং দুজন পথচারীকে আহত করার অপরাধে স্বল্প সময়ের জন্যে জেলে যেতে হয়েছিলো জন আব্রাহামকে। পরবর্তীতে অবশ্য জরিমানা ও এমন কাজ পুনরায় না করার শর্তে মুচলেকা দিয়ে কারাবরন থেকে মুক্তি পান এই তারকা।

 

সোনালি বেন্দ্রেঃ নারী তারকাদের মধ্যে জেলে যাওয়ার অভিজ্ঞতা হয়েছিলো সোনালি বেন্দ্রের। একটি ম্যাগাজিনে আপত্তিকর পোজ দিয়ে ধর্মানূভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিলো সোনালীকে। তবে বেশিক্ষন থাকতে হয়নি এ তারকাকে,১৪ ঘন্টা পর জামিন নিয়ে জেল থেকে বেরিয়ে আসেন এই তারকা অভিনেত্রী।

 

সাইফ আলী খানঃ জেলে যেতে হয়েছিলো নবাব পরিবারের সন্তান ও বলিউড তারকা সাইফ আলী খানকেও। মুম্বাইয়ের তাজ হোটেলে এক সন্ধায় স্ত্রী কারিনা ও সহকর্মী মালাইকা অরোরাকে নিয়ে খেতে গিয়েছিলেন সাইফ,আর সেখানেই উত্তেজিত হয়ে এক সাধারন মানুষকে মেরে বসেন সাইফ ,আর তাতেই গ্রেফতার করা হয় তাকে। কিছুক্ষন থাকতে হয়েছিলো কারাগারে,পরে অবশ্য জামিনে মুক্তি হয় সাইফ আলী খানের।

 

অক্ষয় কুমারঃ বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড ল্যাকমের ফ্যাশন শোতে স্ত্রী টুইংকেল খান্নাকে দিয়ে নিজের প্যান্টের চেইন খোলানোয় বেশ সমালোচিত হয়েছিলেন অক্ষয়। পাবলিক শোতে এমন ন্যাক্কারজনক আচরনের জন্যে জেলেও যেতে হয়েছিলো তাকে। পরে অবশ্যে ক্ষমা চেয়ে জামিন নিয়ে বের হয়ে আসেন এ তারকা।

 

সুনীল শেঠিঃ ইলেকট্রনিক্স কোম্পানি হুন্দাই লিমিটেডের পরিচালক থাকাকালিন সময়ে একটি চেক জালিয়াতির মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন সুনীল শেঠী। তাকে গ্রেফতারের পর অবশ্যে বিষয়টি মিটমাট করে জামিনের ব্যবস্থা করেন হুন্দাই লিমিটেড।

 

ফারদিন খানঃ বলিউডের বেশ সম্ভাবনাময় তারকাই ছিলেন বলা যায় ফারদিন খানকে। তবে নিজের ক্যারিয়ারের কফিনে প্যারেকটি নিজেই ঠুকে দিলেন যেনো। ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকার সময়ে ড্রাগ আমদানি করতে গিয়ে ধরা পড়েন এ তারকা। সে অপরাধে মামলা হয়েছিলো ৫ দিনের জন্যে যেতে হয়েছিলো জেলেও। তারপরে আরো রুপালি পর্দায় ফারদিনের আনাগোনা চোখে পড়েনি।

 

শাইনি আহুজাঃ গ্যাংস্টার ছবি দিয়ে দর্শক মাতিয়েছিলেন বলিউড তারকা শাইনি আহুজা। তবে ২০ বছর বয়সী গৃহ পরিচারিকাকে ধর্ষনের দায়ে লম্বা সময়ের জন্যে জেলে যেতে হয়েছিলো শাইনিকে,দীর্ঘসময় ধরেই জেলে ছিলেন এ তারকা।