খাবারে স্বাদ আনা ছাড়াও আর যা করে লবণ

0
26
লবণ ছাড়া রান্নার কথা ভাবাই যায় না। তবে লবণ যে শুধু খাবারে স্বাদ আনে তা-ই নয়। সংসারের নানা কাজে লাগে লবণ। এমনকি সৌন্দর্য চর্চায়ও ভূমিকা রাখতে পারে। কীভাবে? জেনে নিন…

 

ঘরের স্যাঁতসেতেভাব দূর করে : বৃষ্টিবাদলের দিনে ঘর কেমন স্যাঁতসেতে হয়ে যায়। ঘরের বাতাস কেমন যেন অস্বস্তিকর মনে হয়, তাই না? এই ভাব দূর করতে একটি মাঝারি সাইজের বাটিতে লবণ ঢেলে দিন এবং সেই বাটিটি ঘরের টেবিলের ওপর রেখে দিন। এতে ঘরের স্যাঁতসেতেভাব দূর হয়ে যাবে।

 

ইস্ত্রি মসৃণ করতে : ইস্ত্রি একটু পুরনো হলে অনেক সময় মরিচা ধরে যায় বা আগের মতো আর মসৃণ থাকে না। এর ফলে কাপড় ভালো ইস্ত্রি হয় না। এবার তুলো কিংবা এক টুকরো কাপড়ে খানিকটা লবণ লাগিয়ে তা দিয়ে ঠান্ডা ইস্ত্রিটা ভালো করে ঘষে নিন, দেখবেন কী সুন্দর আগের মতো মসৃণ হয়ে গেছে।

 

ইলেকট্রিক চুলায় : রান্নার পরপরই নিয়মিত ভালো করে পরিষ্কার না করার কারণে অনেক সময় ইলেকট্রিক চুলার চারদিকে কেমন শক্ত দানার মতো ময়লা জমে যায়, যা রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করা ছাড়া ওঠানো কঠিন হয়ে পড়ে। এক্ষেত্রে চুলার চারিদিকে লবণ ছড়িয়ে দিয়ে একটু ভেজা শক্ত কাপড় দিয়ে কিছুক্ষণ ঘষে নিন। ব্যাস, হয়ে গেল আবার আগের মতো চকচকে চুলা।

 

মোমের সৌন্দর্য : নানা উপলক্ষ্যে সর্বত্রই মোমের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। তাছাড়া আজকাল কত ফল, ফুলের ফ্লেভারের মোমই না বাজারের পাওয়া যায়। তবে জ্বলন্ত মোম গলে গেলে দেখতে খারাপ লাগে। তাই মোম ব্যবহারের আগে যদি সারারাত লবণ পানিতে ভিজিয়ে রাখা যায়, তাহলে আর গলে পড়বে না। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে, লবণপানিতে ভেজানোর সময় মোমের সুতা যেন না ভেজে।

 

তেলের দাগ তুলতে লবণ : খাওয়া বা রান্নার সময় প্রায়ই কাপড়ের তেলের দাগ লাগে। যে কোনো তেলের দাগের ওপর একটু লবণ ছড়িয়ে দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। লবণ তেলের দাগ শুষে নেবে।

 

পনির তাজা রাখতে : বেশি দিন তাজা ও পনিরের স্বাদ ধরে রাখতে চান? তাহলে একটি পাতলা কাপড় লবণপানিতে ভিজিয়ে চিপে নিন। তারপর কাপড় দিয়ে পনিরটিকে পেচিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন, ব্যাস…!

 

সৌন্দর্য চর্চায় লবণ : পিলিং বা স্ক্রাব হিসেবেও লবণ ব্যবহার করা যায়, বিশেষ করে হাত বা পা দুটোকে মসৃণ ও সুন্দর রাখতে। তিন চা চামচ অ্যাভোকাডো ও একই পরিমাণ লবণ মিশিয়ে শরীরের খসখসে জায়গায় ঘষে নিন, দেখবেন কেমন নরম আর তুলতুলে হয়ে গেছে। অ্যাভোকাডে না থাকলে মধুও ব্যবহার করতে পারেন।

 

তামা ও পিতলের দাগ : তামা এবং পিতলের তৈরি জিনিসের ময়লা দাগ দেখতে মোটেই ভালো লাগে না। এই দাগ সহজেই তোলা সম্ভব। লবণ এবং আটা দিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিন আর তাতে মিশিয়ে নিন কয়েক ফোঁটা ভিনিগার। এই পেস্টটি তামা বা পিতলের ওপর এক ঘণ্টা লাগিয়ে রাখুন। তারপর ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার একদম ঝকঝকে দেখাবে।

 

গলা ব্যথা কমাতে : গলা ব্যথায় লবণের জুড়ি নেই। ঠান্ডা লাগা বা গলা ব্যথায় কুসুম গরম এক গ্লাস পানিতে আধা চা চামচ লবণ দিয়ে দিনে কয়েকবার গার্গল করুন। এতে মুখের ভেতরটা যেমন জীবাণুমুক্ত হবে, তেমনি গলাব্যথাও কমে যাবে।