ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় সপ্তাহ শেষ

0
51

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএস্ই) সবকটি মূল্য সূচক বেড়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। এর মাধ্যমে টানা দুই কার্যদিবস ঊর্ধ্বমুখী থাকলো শেয়ারবাজার।

এদিন মূল্য সূচকের পাশাপাশি ডিএসইতে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। তবে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। বাজারে লেনদেন হওয়া ১১০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৮১টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২০ পয়েন্ট বেড়ে পাঁচ হাজার ৮৪৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১৩ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ২০৪ পয়েন্টে অবস্থা করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৩৬৫ পয়েন্টে।

বাজারে লেনদেন হয়েছে ৫৭৭ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৫৬১ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। সে হিসাবে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ১৫ কোটি ৯৮ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকো’র শেয়ার। কোম্পানিটির ৬৮ কোটি ৮০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের ৪৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৩০ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাল, সিটি ব্যাংক, ইবনে সিনা, ওসমানিয়া গ্লাস, কেয়া কসমেটিক এবং সেলভো কেমিক্যাল।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ২৭ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৮৮৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারে লেনদেন হয়েছে ৪২ কোটি ৬২ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২২৮ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭৭টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১২৪টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির।

 

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here